বৃহস্পতিবার , ১৭ জানুয়ারি ২০১৯ শুক্রবার , ১৭ই জানুয়ারি, ২০১৯ ইং, ৫ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Home / জাতীয় / সব সেবার কেন্দ্রবিন্দু হবে স্মার্টফোন: তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী

সব সেবার কেন্দ্রবিন্দু হবে স্মার্টফোন: তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী

সরকারের সব সেবার কেন্দ্রবিন্দু স্মার্টফোন হবে বলে উল্লেখ করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, সেদিন আর বেশি দূরে নয় যেদিন স্মার্টফোন নতুন জীবনযাত্রায় নিয়ে যাবে সবাইকে। সব কাজ হবেই স্মার্টফোনেই।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ সব কথা বলেন তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, চলার পথে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ডিভাইস স্মার্টফোন। এই স্মার্টফোন আমরা শুধু আমদানি আর রফতানিতেই বিশ্বাসী নয়, উৎপাদনেও বিশ্বাসী। বাংলাদেশ প্রতিদিন পরিবর্তন হচ্ছে আর তাতেই আমাদের এগিয়ে চলা। এ ছাড়া সরকার মোবাইল কেন্দ্রিক সবদিকেই ফোকাস দিচ্ছে। স্মার্টফোনের মাধ্যমে কাজগুলো আরো সহজভাবে করা যায় সে ব্যাপারেও ভাবা হচ্ছে।

মোস্তাফা জব্বার জানান, আগামী কয়েকবছরের মধ্যে সরকারের বেশ কিছু পদক্ষেপ আছে। আর যেগুলো প্রধান ধাপই আইসিটি। ডাকঘর নিয়েও আমাদের চিন্তা আছে। সেগুলো ডিজিটাল করার। সেক্ষেত্রে যারা কাজ করবে তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে এবং তাদের দিয়েই পরিচালনা করা হবে। এসব কিছুতেই ব্যবহার হবে স্মার্টফোন। প্রযুক্তির ব্যবহার যত বাড়বে স্মার্টফোনের ব্যবহারও তত বাড়বে।

বিশেষ অতিথি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, এক সময় স্মার্টফোনের কথা চিন্তাই করা যেত না, তখন ফিচার ফোন ছিল, কিন্তু সময়ের পরিবর্তনে স্মার্টফোনের চাহিদা বেড়েছে। বর্তমানে বছরে সাড়ে ৩ কোটি স্মার্টফোন আমদানি করা হচ্ছে দেশে। এ ছাড়া স্মার্টফোন নির্ভর জীবনযাপন করছি আমরা। কেননা ঘুম থেকে উঠার জন্যও অ্যালার্ম ব্যবহার করছি স্মার্টফোনের। আবার কোনো কিছু নোট নেওয়ার জন্যও স্মার্টফোন ব্যবহার করছি। দেশে ৯ কোটির বেশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী এই সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীও।

About todaynews24

Check Also

আগামী সপ্তাহে সংরক্ষিত নারী আসনের তফসিল

আগামী সপ্তাহে একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে তফসিল ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *