মঙ্গলবার , ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ বুধবার , ১৮ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং, ৫ই পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ খবর
Home / জাতীয় / পিরোজপুর-২ আনোয়ার হোসেন মঞ্জু দুর্গে হানা দিতে প্রস্তুত বিএনপির সোহেল মনজুর সুমন ।

পিরোজপুর-২ আনোয়ার হোসেন মঞ্জু দুর্গে হানা দিতে প্রস্তুত বিএনপির সোহেল মনজুর সুমন ।

ভান্ডারিয়া, কাউখালী ও ইন্দুরকানী- এ তিনটি উপজেলা নিয়ে গঠিত পিরোজপুর-২ আসন। এ আসনের ভোটার দুই লাখ ১০ হাজার ৯৯৭। এর মধ্যে ভান্ডারিয়ায় এক লাখ তিন হাজার ৬৪৮, ইন্দুরকানীতে ৫৪ হাজার ২৪৬ ও কাউখালীতে ৫৩ হাজার ১০৩ জন। এ আসন জাতীয় পার্টির (জেপি) দুর্গ হিসেবে পরিচিত। এ আসনে পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ১৯৮৬, ১৯৮৮, ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০১ ও ২০১৪ সালের ছয়টি নির্বাচনে ছয়বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।  আগামী নির্বাচনে কেন্দ্রীয়ভাবে মহাজোটের সঙ্গে জেপির ঐক্য বজায় থাকলেও ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী সোহেল মনজুর সুমনের মনোনয়ন এ আসনটি আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর অনিশ্চিত হয়ে পড়বে ।

১৯৮৫ সাল থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত তিনি চারবার মন্ত্রী ছিলেন ।এতে আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর মূল প্রতিদ্বন্দ্বী হবেন ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী সোহেল মনজুর সুমন। আনোয়ার হোসেন মঞ্জু দুর্গে হানা দিতে প্রস্তুত বিএনপির সোহেল মনজুর সুমন ।

পিরোজপুর-২ (কাউখালী-ভাণ্ডারিয়া-ইন্দুরকানি) আসনে ধানের শীষের মনোনয়নপ্রত্যাশী জেলা বিএনপির সহসভাপতি ও ভাণ্ডারিয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি আহম্মেদ মঞ্জুর সোহেল সুমন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ করছেন।তিনি প্রায় দুই যুগ ধরে ভাণ্ডারিয়া উপজেলায় বিএনপির নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন এবং সুখে দুঃখে নেতাকর্মীদের পাশে থেকে রাজনীতি করে আসছেন। দলের দুর্দিনেও দূরে সরে যাননি।

বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে সহযোগিতা প্রদান করে যাচ্ছেন। এছাড়াও কেন্দ্রীয়, স্থানীয় এবং তৃণমূল পর্যায়ের বিভিন্ন নেতাকর্মীর সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে আসছেন। তার বাবা ১৯৯৬ সালে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পিরোজপুর-২ থেকে বিএনপি মনোয়ন নিয়ে নির্বাচিত হয়েছিলেন।

এ নির্বাচনী এলাকায় জয়-পরাজয়ের হিসাব ভাণ্ডারিয়া উপজেলার ওপর নির্ভরশীল। কারণ ভাণ্ডারিয়ায় ভোটার সংখ্যা বেশি। আর এ উপজেলা থেকে বিএনপির মনোনয়ন প্রার্থী শিল্পপতি আহম্মদ সোহেল মনজুর সুমন। তিনি যুক্তরাষ্ট্র থেকে উচ্চশিক্ষা অর্জন করে এলাকায় বিএনপির রাজনৈতিক ও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে জড়িত আছেন। বিএনপির মনোনয়ন পেলে আঞ্চলিকতার টানে এ আসনে ধানের শীষের বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না বলে মনে করেন সুমন।

তিনি বলেন, উড়ে এসে জুড়ে বসা নয়, যুগ যুগ ধরে বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত আছি। দলের জন্য কী করেছি বা না করেছি তা কারও অজানা নয়। দলের চরম বিপদের সময়ে মাঠে ছিলাম এবং এখনও আছি।

অবাধ, নিরপেক্ষ এবং সবার অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হলে আমি পিরোজপুর-২ আসনটি পুনরুদ্ধার করে খালেদা জিয়াকে উপহার দিতে সক্ষম হব। নির্বাচিত হলে তিনি এ আসনে উন্নয়নের মাধ্যমে জনগণের সেবা করতে পারবেন।

আহম্মেদ মঞ্জুর সোহেল সুমন বলেন, এলাকায় সার্বিক উন্নতি কোনো এমপি-মন্ত্রী করতে পারেননি। বিগত দিনে পিরোজপুর-২ আসন ছাড়াও তিনি বিভিন্ন আসনে বিএনপি প্রার্থীদের সঙ্গে কাজ করেছেন এবং সহযোগিতা দিয়েছেন।

আহম্মেদ সোহেল মনজুর সুমন নয়াপল্টন বিএনপির কার্যলয় থেকে মননয়ন পত্র সংগ্রহ করেন।

 

এ সময় পিরোজপুর জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক অধক্ষ্য আলোমগীর হোসেন,কাউখালী বিএনপির সভাপতি আহসান,সাধারন সম্পাদক দ্বীন মোহাম্মদ ভান্ডারিয়া উপজেলা বিএনপির সহ সভাপতি মো: তহা, দেলায়ার হোসেন,মনির আকনসহ পিরোজপুর ২আসনের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী উপস্হিত ছিল।

 

0Shares

 

About todaynews24

Check Also

মনোনয়ন না দেওয়ায় বিএনপির গুলশান কার্যালয়ে ভাঙচুর

মনোনয়ন না দেওয়ায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে হামলা ও ভাঙচুর করেছেন দলটির তিন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *